আমাদের লক্ষ্যঃ

‘আত্মমোক্ষার্থং জগদ্ধিতায় চ’ অর্থাৎ আত্মমুক্তি ও জগতের কল্যাণ করা। 

আমাদের উদ্দেশ্যঃ​

*নিয়মিত যোগ অভ্যাসের দ্বারা শারীরিক সুস্থ্যতা, মানসিক বিকাশ, সামাজিক সচেতনতা, নৈতিক মূল্যবোধের জাগরণ ও আধ্যাত্মিক আনন্দ লাভ করা। 

*সকল মানুষের শারীরিক, মানসিক, নৈতিক, আধ্যাত্মিক উন্নতির জন্য অন্তর্মুখী  অষ্টাঙ্গ যোগ সাধনার গবেষণা, অনুশীলন, প্রশিক্ষণ প্রদান ও প্রচার করা।

*প্রাতিষ্ঠানিক “Ananda Marga Yoga and Naturopathy” Instructor & Diploma course” চালু করা।

*সকল মানুষের শারীরিক সুস্থ্যতা লাভের জন্যে দেশের বিভিন্ন স্থানে যৌগিক চিকিৎসাসহ বিকল্প চিকিৎসা যেমন, ন্যাচারোপ্যাথী, হোমিওপ্যাথী, আয়ুর্বেদ,    আকুপ্রেসার ইত্যাদি সেবাকেন্দ্র স্থাপন ও পরিচালনা করা।

*বিভিন্ন ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রীদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার সাথে যোগ  ও নৈতিক শিক্ষার দ্বারা তাদের চরিত্র গঠন করতে উদ্বুদ্ধ করা ও সহায়তা করা।  

* বিশ্বশান্তি,  নব্য-মানবতাবাদ তথা বিশ্বভ্রাতৃত্ব প্রতিষ্ঠা ও  প্রতিষ্ঠানের   লক্ষ্য ও আদর্শের প্রচার, প্রসারের জন্য নিয়মিত আলোচনা সভা, পুস্তক-পত্রিকা প্রকাশনা, সেমিনার, সেম্পোজিয়াম, ওয়ার্কসপ, সন্মেলন, সভা, যোগ-মেডিটেশন কেন্দ্র/ক্লাব স্থাপন, গ্রন্থাগার স্থাপন ইত্যাদি করা।  

*শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। শিক্ষিত সমাজ গঠনে সু-শিক্ষা অপরিহার্য। বিধায় শিক্ষা সংক্রান্ত সকল কার্যক্রম গ্রহণ করা।

*পিতৃ-মাতৃহীন, অসহায়, দুঃস্থ শিশুদের জন্য শিশুসদন (এতিমখানা ও লিল্লাহ বোর্ডিং), ছাত্রাবাস, বৃদ্ধাশ্রম ইত্যাদি স্থাপন ও পরিচালনা করা।

*প্রকৃতি সৃষ্ট বা কৃত্রিম দুর্যোগে স্থায়ী ও অস্থায়ীভাবে সহায়তা করা।

*সমাজের নানা স্তরে বিভিন্ন ধরণের অন্ধবিশ্বাস, কুসংস্কার ও জাতিভেদ প্রথার বিরুদ্ধে প্রচার করে জনগনের বিচারপ্রবণ মানসিকতা জাগ্রত করা, মানবাধিকার সচেতন করা, মানবাধিকার রক্ষা করতে সাহায্য করা ও নব্য মানবতাবাদে উদ্বুদ্ধ করা।

*অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে জন সচেতনতা জাগ্রত করতে শিল্প প্রদর্শনী, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সাংস্কৃতিক ও শিক্ষামূলক প্রতিযোগিতা, আর্ট গ্যালারী, নৃত্য-বাদ্য-সঙ্গীতের বিদ্যালয় স্থাপনা ইত্যাদি করা।

*বেকার যুবক-যুবতী বা শিক্ষারত ছাত্র-ছাত্রীদের আর্থিক উন্নয়নে কারিগরী প্রশিক্ষণ ও সহায়তার প্রয়াস করা।

*বিভিন্ন ধরণের মাদকদ্রব্যের বিরুদ্ধে গণচেতনা ও গণ আন্দোলন গড়ে মাদক মূক্ত সমাজ তৈরী করা।

*নারী নির্যাতন, স্ত্রী হত্যা, পণপ্রথা (যৌতুক), অনৈতিক বহুবিবাহ, অমানবিক বিবাহ বিচ্ছেদ ইত্যাদির বিরুদ্ধে জনসচেতনতা ও গণ আন্দোলন গড়ে তোলা।

*অর্থনৈতিক স্বনির্ভরতা অর্জনের জন্য গ্রামে-গঞ্জে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে চাষাবাদে সহযোগিতা করা, কৃষিভিত্তিক ও কৃষিসহায়ক কুটির শিল্প, ক্ষুদ্র শিল্প, ক্রেডিট সোসাইটি/ইউনিয়ন ইত্যাদি ব্যাপক দলগত/সমষ্টিগত ভিত্তিতে গড়ে তুলতে উৎসাহ দেয়া  ও গড়ে তোলা।

*সরকারি বিভিন্ন দিবস উদযাপন ও উন্নয়নমূলক কাজে সহযোগিতা ও অংশ গ্রহণ করা।

“কর্মই মানুষকে মহান করে” তোলে। সাধনার দ্বারা-সেবার দ্বারা-ত্যাগের দ্বারা মহান হও।”

—– শ্রীশ্রীআনন্দমূর্ত্তিজী